Home » Blog » Tech News » ঈদে স্মার্টফোন বাজারের হালচাল

ঈদে স্মার্টফোন বাজারের হালচাল

২০২১ সালের রোজার ঈদ সামনে রেখে যারা নতুন ফোন কিনতে আগ্রহী, তাদের জন্য বর্তমান সময়ের কয়েকটি সেরা ফোনের বিস্তারিত তুলে ধরা হলো। বাজেট বিবেচনা করে আপনি কোনটি কিনতে চাচ্ছেন জানাতে পারেন কমেন্ট বক্সে

Samsung Galaxy A32

স্যামসাং নিয়ে এসেছে স্পেসিফিকেশন এবং অত্যাধুনিক ক্যামেরাযুক্ত ডিভাইস গ্যালাক্সি এ৩২। বাজারে আসার পর এর অসাধারণ ক্যামেরা, ডিসপ্লে এবং গেমিং পারফরম্যান্সের জন্য প্রযুক্তিপ্রেমীদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলে ডিভাইসটি। নিখুঁত ছবি তুলতে পারদর্শী গ্যালাক্সি এ৩২ এর কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা। ১.৮ অ্যাপারচার বিশিষ্ট ৬৪ মেগা পিক্সেলের প্রধান ক্যামেরায় উঠবে উজ্জ্বল আর অসাধারণ ছবি এবং এর নাইট মোড দিয়ে রাতে বা কম আলোতে তোলা যাবে ঝকঝকে ছবি। ৬ জিবি র্যাম ও ১২৮ জিবি রমের গ্যালাক্সি এ৩২ ডিভাইসের বাজারদর ২৬ হাজার ৯৯৯ টাকা।

Samsung Galaxy A32

Samsung Galaxy A32

Samsung Galaxy A52 এবং Samsung Galaxy A72

অ্যাডভান্সড ক্যামেরা ফিচার ও লংটাইম ব্যাটারি লাইফ নিয়ে বাজারে এসেছে স্যামসাংয়ের নতুন ফোন গ্যালাক্সি এ৫২ ও এ৭২ স্মার্টফোন।

Samsung Galaxy A52

Samsung Galaxy A52

নতুন ফোন দুটোতে থাকছে অসাধারণ ক্যামেরা ফিচার, লংটাইম ব্যাটারি লাইফের নিশ্চয়তা। এতে আইপি৬৭ রেটিংযুক্ত পানি ও ধূলিকণা রোধক বৈশিষ্ট্য এবং দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি লাইফ নিশ্চিত করা হয়েছে।

ফোনগুলোতে ক্যামেরা সেকশনে থাকছে ৬৪ মেগা পিক্সেলের হাই-রেজ্যুলেশন কোয়াড ক্যামেরা সেটাপ। যা দিয়ে প্রাণবন্ত ছবি ও ভিডিও ধারণ করা যাবে। ভিডিও ফিচারের মধ্যে রয়েছে ৪কে ভিডিও স্ন্যাপ থেকে প্রিয় মুহূর্তগুলোকে ৮ মেগা পিক্সেলের হাই-রেজ্যুলেশন ছবিতে কনভার্ট করা যাবে।

ভিডিওতে কাঁপুনি রোধে ব্যবহার করা হয়েছে ওআইএস (অপটিক্যাল ইমেজ স্টেবিলাইজার) প্রযুক্তি। যা ছবি ও ভিডিওর শার্পনেস এবং কাঁপুনি কমিয়ে স্থির ভিডিও আউটপুট দেবে। এছাড়া মাল্টি-ফ্রেম প্রসেসিং ব্যবহারের কারণে নাইট মোড দিয়ে অন্ধকারেও ভালো মানের ছবি তোলা যাবে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৫২ ও এ৭২ স্মার্টফোন দুটিতে যথাক্রমে ৪,৫০০ এবং ৫,০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারির ব্যবহার করা হয়েছে। যা সর্বোচ্চ দুই দিন ব্যাকআপ দেবে।

Samsung Galaxy A72

Samsung Galaxy A72

নতুন গ্যালাক্সি এ৫২ এবং এ৭২ অওসাম ব্লু, অওসাম ব্ল্যাক এবং অওসাম হোয়াইট এই তিনটি রঙে পাওয়া যাবে। বাজারমূল্য যথাক্রমে ৩৩৯৯৯ এবং ৪৫৯৯৯ টাকা।

Redmi Note 10 Pro

রেডমি নোট ১০ প্রো তে রয়েছে ৬.৬৭ ইঞ্চির ফুল এইচডিপ্লাস এমোলেড ডিসপ্লে, যা ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেট সাপোর্টেড। ফোনটির আকর্ষণীয় ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার পাশাপাশি রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের আলট্রা-ওয়াইড ক্যামেরা, ৫ মেগাপিক্সেলের সুপার-ম্যাক্রো ক্যামেরা ও ৫ মেগাপিক্সেলের ডেপথ সেন্সর। ফোনের ফ্রন্টের পাঞ্চহোলে থাকছে ১৬ মেগাপিক্সেলের সেল্ফি ক্যামেরা। মিইউআই এর ক্যামেরা অ্যাপের অসংখ্য ফিচার উপভোগ করা যাবে রেডমি নোট ১০ প্রো এর এই অসাধারণ ক্যামেরা সেটাপ দ্বারা।

Redmi Note 10 Pro

Redmi Note 10 Pro

রেডমি নোট ১০ প্রো তে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপ্পড্রাগন ৭৩২জি প্রসেসর। এছাড়াও ফোনটিতে রয়েছে স্টিরিও স্পিকার। ব্যাটারি হিসেবে থাকছে ৫০২০ মিলিএম্প এর ব্যাটারি যা ৩০ মিনিটেই ৫৯% চার্জ করা যাবে ফোনের সাথে দেওয়া ৩৩ ওয়াটের ফাস্ট চার্জার দ্বারা। রেডমি নোট ১০ প্রো তে রয়েছে সাইড মাউন্টেড ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর। দাম ২৬৯৯৯ টাকা।

Redmi Note 10

রেডমি নোট ১০ এর ৬.৪৩ ইঞ্চির ডিসপ্লে অ্যামোলেড প্যানেল হলেও, থাকছে ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেট সাপোর্ট। এই ফোনটিতে কোয়াড ক্যামেরা থাকলেও, থাকছেনা ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এতে ব্যবহার করা হয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরা। সেল্ফি হিসেবে দেওয়া হয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের সেল্ফি ক্যামেরা। রেডমি নোট ১০ ফোনটিতেও রয়েছে সাইড মাউন্টেড ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর। ফোনটির ৫০০০ মিলিএম্প এর ব্যাটারি বক্সে দেওয়া ৩৩ ওয়াটের চার্জার দিয়ে ৬৭% চার্জ করা যাবে মাত্র ৩০ মিনিটে। পাশাপাশি আইআর ব্ল্যাস্টার এবং ৩.৫ মিমি জ্যাক ও রয়েছে রেডমি নোট ১০ এ।

Redmi Note 10

Redmi Note 10

Realme 8 Pro

রিয়েলমি তাদের আরও একটি নিউ ব্র্যান্ড ফোন রিয়েলমি ৮ প্রো লঞ্চ করেছে।

এতে থাকছে ৬.৪ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস রেজুলেশনের একটি সুপার এমোলেড ডিসপ্লে। এর অ্যাসপেক্ট রেশিও হলো ২০:৯। এই ফোনটির পিপিআই ডেনসিটি হল ৪১১। ফোনটির অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে থাকছে অ্যান্ড্রয়েড ১১। চিপসেট হিসেবে এতে থাকছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৩০ জি। জিপিইউ হিসেবে এতে থাকছে এন্ট্রিন ৬১৮।

Realme 8 Pro

Realme 8 Pro

ফোনটি পাওয়া যাচ্ছে মাত্র একটি ভেরিয়েন্ট। এটি হল ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজে সাথে ৬ জিবি রেম । এই ফোনের ব্যাক সাইডে থাকছে ১০৮ মেগা পিক্সেলের মেইন সেনসর ক্যামেরা,৮সমেগাপিক্সেল একটি আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা,২ মেগা পিক্সেলের একটি ম্যাক্রো সেনসর ক্যামেরা । আর সেলফি ক্যামেরা হিসেবে থাকছে ৩২ মেগাপিক্সেল এর একটি ক্যামেরা এছাড়া, এই ফোনে থাকছে ৪৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার এর নন রিমুভেবল হিউজ ব্যাটারি। বাংলাদেশের বাজারে ফোনটি এর দাম হচ্ছে ২৮০০০ টাকা।

Realme C25

ডুয়েল সিমের রিয়েলমি সি২৫ ফোনে আছে ৬.৫ ইঞ্চি এইচডি প্লাস আইপিএস ওয়াটার ড্রপ নচ ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লের পিক্সেল রেজোলিউশন ৭২০ x ১৬০০। এই ফোনে ২.০ গিগাহার্টজ মিডিয়াটেক হেলিও জি৭০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। সাথে আছে ৪ জিবি র্যাম ও ১২৮ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ।

Realme C25

Realme C25

ফটোগ্রাফির জন্য Realme C25 ফোনের পিছনে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। যার প্রাইমারি ক্যামেরা এফ/১.৮ অ্যাপারচার সহ ৪৮ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও বাকি দুটি ক্যামেরা হল এফ/২.৪ অ্যাপারচার সহ ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স ও এফ/২.৪ অ্যাপারচার ২ মেগাপিক্সেল ব্ল্যাক এন্ড হোয়াইট লেন্স। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য এতে পাওয়া যাবে এফ/২.০ অ্যাপারচার সহ ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা।

পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এতে আছে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সহ ৬,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি।

Oppo F19 Pro

অন্যান্য অপো ফোনের মতো এর রয়েছে শক্তিশালী ক্যামেরা সেগমেন্ট। আছে পুরো কোয়াড ক্যামেরা সেট-আপ। এর ক্যামেরাগুলোর মধ্যে চারটি রিয়ার ও একটি ফ্রন্ট ক্যামেরা। ৩২ মেগাপিক্সেলের পাঞ্চ হোল সেলফি-শুটার দিয়ে দারুণ সব সেলফি তোলা যাবে। এটি দিয়ে যেকোনো আলোতে চমৎকার সব ছবি ক্যাপচার করা যাবে। ৪৩১০ এমএইচ ব্যাটারির ফোনটিতে রয়েছে ৩০ ওয়াট দ্রুত চার্জিং ভুক চার্জার।

৬.৪৩ ইঞ্চি ডিজাইনের আল্ট্রা স্লিম ফোনটির ওজন মাত্র ১৭২ গ্রাম এবং পূরুত্ব ৭.৮ মিলিমিটার। সুপার এমোলেড পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে ফোনটির স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৯০.৮ শতাংশ। তাই নিজের মতো করে এইচডি কোয়ালিটির ভিডিও কনটেন্ট উপভোগ করা যাবে।

Oppo F19 Pro

Oppo F19 Pro

মিডিয়া টেক হেলিও পি৯৫ প্রসেসর সম্পন্ন ফোনটিতে রয়েছে ৮ জিবি র্যাম এবং ১২৮ জিবি রম। শক্তিশালী পারফরমেন্সের কারণে ব্যবহারকারী নির্বিঘ্নে পাবজিসহ যেকোনো গেম খেলতে পারবেন। ফোনটির বাজার মূল্য ধরা হয়েছে ২৮,৯৯০ টাকা।

Vivo x60 Pro

বিশ্বে প্রথমবারের মতো গিম্বল-স্ট্যাবিলাইজার প্রযুক্তি সংবলিত স্মার্টফোন নিয়ে এসেছে বহুজাতিক স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ভিভো। গত ৩১ মার্চ থেকে নতুন প্রযুক্তির ‘ভিভো এক্স৬০ প্রো’ মডেলের ফোনটি পাওয়া যাচ্ছে বাংলাদেশের বাজারে।

Vivo X60 Pro

Vivo X60 Pro

ফোনটিতে, জার্মানভিত্তিক বিখ্যাত প্রতিষ্ঠান কার্ল জেইসের তৈরি সাতটি লেন্স এক্স৬০ প্রো স্মার্টফোনে যুক্ত করা হয়েছে। ভিভো এক্স৬০ প্রো এর পেছনে তিনটি ও সামনে একটি ক্যামেরা রয়েছে।

ভিভোর এ ৫জি স্মার্টফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকম স্নাপড্রাগন ৮৭০ প্রসেসর। ৭ ন্যানোমিটারের চিপসেটসহ রয়েছে অ্যাডরেনো ৬৫০ জিপিইউ। ফোনটিতে ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং ২৪০ হার্টজ টাচ-রেসপন্স রেট পাওয়া যায়। ভিভো এক্স৬০ প্রোতে রয়েছে ১২ জিবি র্যাম ও ২৫৬ জিবি রম।

থ্রিডি কার্ভড ডিসপ্লের ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে স্যাটিন ফিনিশের এজি গ্লাস। ব্লু ও ব্ল্যাক এ দুটি কালারের ফোনটিতে রয়েছে ৬.৫৬ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস অ্যামোলেড ডিসপ্লে। ৩৩ ওয়াট ফ্ল্যাশ চার্জের সঙ্গে ভিভো এক্স৬০ প্রোতে আছে ৪২০০ এমএএইচ ব্যাটারি। বাংলাদেশের গ্রাহকরা ভিভো এক্স৬০ প্রো কিনতে পারবেন ৬৯ হাজার ৯৯০ টাকায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *