Home » Blog » Tech News » ওয়াটারপ্রুফ ব্যর্থতায় বড় জরিমানার শঙ্কায় স্যামসাং

ওয়াটারপ্রুফ ব্যর্থতায় বড় জরিমানার শঙ্কায় স্যামসাং

ওয়াটারপ্রুফ ব্যর্থতায় বড় জরিমানার শঙ্কায় স্যামসাং

ফোনের পানি প্রতিরোধী বিজ্ঞাপন দিলেও ফোন পানি প্রতিরোধী প্রমাণে ব্যর্থ হওয়ায় অস্ট্রেলিয়ায় আইনের মুখোমুখী হতে হচ্ছে জনপ্রিয় মোবাইল ব্র্যান্ড স্যামসাংকে। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা পানিতে ব্যবহার উপযোগী ফোনের বিজ্ঞাপন দিয়ে ভোক্তাদের বিভ্রান্ত করছে।

অস্ট্রেলিয়ার কম্পিটিশন অ্যান্ড কনজ্যুমার কমিশন(এসিসিসি) অভিযোগ করেছে, স্যামসাং তাদের বিজ্ঞাপনে জানিয়েছে সাঁতার এবং সার্ফিংয়ের সময় তাদের ফোন ব্যবহার করা যাবে, যা ‘‘ভুল’’ দাবি।

তবে স্যামসাং আইনি প্রক্রিয়া মোকাবিলা করাসহ তাদের বিজ্ঞাপনের পাশেই থাকবে বলে বিবিসি জানিয়েছে।

এসিসিসি এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, আইনি প্রক্রিয়া শুরুর আগে আমরা স্যামসাংয়ের তিন শতাধিক বিজ্ঞাপন পর্যলোচনা করেছি। বিজ্ঞাপনে বর্ণনা করেছে তাদের ফোন নিয়ে সমুদ্রের পানিতে এবং সুইমিং পুলে নামলেও ডিভাইস ক্ষতিগ্রস্ত হবে না। এমনকি যতদিন ফোন টিকে থাকবে ততদিন কিছুই হবে না।

স্যামসাং বিজ্ঞাপনে আরো তুলে ধরেছে, তাদের ফোনে পানি প্রতিরোধী আইপি৬৮ আছে। কিন্তু এসিসিসি জানায়, আইপির এই মাত্রা লবণাক্ত পানি বা সুইমিং পুলের পানিতে যে উপাদান থাকে তা প্রতিরোধ করতে পারে না।

তবে স্যামসাং তাদের ওয়েবাসাইটে গ্যালাক্সি এস১০ ফোন সমুদ্র সৈকতে বা সুইমিং পুলে ব্যবহার করতে নিষেধ করেছে বলে এসিসি উল্লেখ করেছে।

এসিসিসি’র অভিযোগ, স্যামসাং বিজ্ঞাপন বানানোর আগে তাদের পণ্যের স্থায়ীত্ব যথাযথভাবে পরীক্ষা করেনি। তারা পানিতে গ্যালাক্সি ফোন ব্যবহার করতে বলেছে যা করা উচিত নয়।

যদি এই বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে ভোক্তাদের বিভ্রান্ত করা হচ্ছে বলে প্রমানিত হয় তাহলে স্যামসাংকে বড় ধরনের জরিমানা গুনতে হবে বলেও এসিসিসি জানায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *