Home » Blog » Tech News » নতুন ফিচার ও উন্নত ক্যামেরা নিয়ে এলো আইফোন ১৩

নতুন ফিচার ও উন্নত ক্যামেরা নিয়ে এলো আইফোন ১৩

প্রতিবছর নতুন আইফোন প্রকাশের মাধ্যমে স্মার্টফোন ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন স্ট্যান্ডার্ড স্থাপন করে আসছে অ্যাপল। এরই ধারবাহিকতায় মুক্তি পেলো ২০২১ সালের আইফোন লাইন-আপ, আইফোন ১৩ সিরিজ। মূল আইফোন ১৩ এর পাশাপাশি আইফোন ১৩ মিনি, আইফোন ১৩ প্রো ও আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্স থাকছে।

অনলাইনে এক দৃষ্টিনন্দন লাইভস্ট্রিমের মাধ্যমে ১৪ই সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ সময় রাত এগারোটায় নতুন আইফোন, আইপ্যাড ও অ্যাপল ওয়াচ প্রকাশ করে অ্যাপল।

আইফোন ১৩ ও আইফোন ১৩ মিনি
গতবছরের মত এই বছরও এন্ট্রি লেভেলের আইফোন মডেল পাওয়া যাবে দুইটি – আইফোন ১৩ এবং আইফোন ১৩ মিনি। আইফোন ১৩ এর ডিসপ্লে ৬.১ইঞ্চি, যেখানে আইফোন ১৩ মিনি এর ডিসপ্লে ৫.৪ইঞ্চি। একই ওলেড প্যানেল হলেও এই বছরের আইফোনের ডিসপ্লের ব্রাইটনেস আগের চেয়ে বেশি।

ডিজাইনগত দিক দিয়ে গতবছরের চেয়ে পার্থক্য হিসেবে থাকছে ক্যামেরা পজিশন ও কিছুটা ছোট নচ। এছাড়াও বাকিসব ক্ষেত্রে আইফোন ১২ ও আইফোন ১৩ কে ডিজাইনের দিক দিয়ে অনেকটা একই মনে হবে এখনো। অ্যাপল এর মতে, এই বছরের আইফোনের নচ গত বছরের চেয়ে ২০% ছোট।

আইফোন ১৩ সিরিজের আসল পরিবর্তন এসেছে এর প্রসেসরে। আইফোন ১৩ সিরিজে চিপসেট হিসেবে থাকছে অ্যাপল এর নতুন এ১৫ বায়োনিক চিপ। এই ৫ন্যানোমিটার ও ৬-কোর সিপিইউ এর প্রসেসর গতবছরে এ১৪ চিপ থেকে বেশি পাওয়ার এফিসিয়েন্ট।

আইফোন ১৩
অ্যাপল এর দাবি নতুন এ১৫ চিপসেট আইফোনের প্রতিযোগী স্মার্টফোনের প্রসেসরের চেয়ে ৫০% ফাস্টার। অ্যাপল আরো জানায় যে এ১৫ এর গ্রাফিক্স অন্যসব ফোন থেকে ৩০% ফাস্টার।

আইফোন ১৩ সিরিজের মধ্যে আপগ্রেড এসেছে ব্যাটারির ক্ষেত্রে। আইফোন ১৩ মিনিতে আইফোন ১২ মিনির চেয়ে ১.৫ঘন্টা অধিক ব্যাটারি ব্যাকাপ যাবে। অন্যদিকে আইফোন ১৩ এর ব্যাটারি আইফোন ১২ এর চেয়ে ২.৫ঘন্টা পর্যন্ত অধিক ব্যাটারি ব্যাকাপ প্রদানে সক্ষম। ব্যাটারি ব্যাকাপে এই উন্নতির পেছনে প্রদান ভূমিকা পালন করেছে নতুন চিপসেট ও অপেক্ষাকৃত বড় ব্যাটারি।

আইফোন ১৩ সিরিজে মুখ্য পরিবর্তন এসেছে এর ক্যামেরা ডিপার্টমেন্টে। এ বছরের আইফোনের ক্যামেরা সেন্সর গত বছরের চেয়ে ৪৭% বেশি বড়। বিশাল সেন্সর এর ফলে অন্ধকার পরিবেশে কম নয়েজের সঙ্গে অধিক আলো ক্যাপচার করতে সক্ষম ফোনগুলো।

নতুন ওয়াইড ১২মেগাপিক্সেল লেন্সে থাকছে এফ/১.৬ এপার্চার, আর ১২মেগাপিক্সেল আলট্রাওয়াইড সেন্সরে রয়েছে ফাস্টার এফ/২.৪ এপার্চারযুক্ত লেন্স ও ১২০ডিগ্রি ফিল্ড-অফ-ভিউ। এছাড়াও আইফোন ১৩ সিরিজেই থাকছে সেন্সর-শিফট স্ট্যাবিলাইজেশন টেকনোলজি, যার দ্বারা নড়াচড়া করার সময় ছবি বা ভিডিওতে ভাইব্রেশন কমানো সম্ভব হবে।

এছাড়াও নতুন আইফোনে ভিডিওর জন্য ‘সিনেমাটিক মোড’ যুক্ত করেছে অ্যাপল। এই ফিচারের ফলে রেকর্ড করার সময় ক্যামেরার ফোকাস স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিয়ন্ত্রিত হবে। এছাড়াও কোনো নির্দিষ্ট ব্যক্তি বা বস্তুর উপর ট্যাপ করে ফোকাস লক বা পরিবর্তন করার অপশনও রয়েছে। ব্যাক ক্যামেরা ও ফ্রন্ট ক্যামেরা, উভয় ক্যামেরাতেই সিনেমাটিক মোড ব্যবহার করা যাবে।

আইফোন ১৩ সিরিজে আগের চেয়ে উন্নত ৫জি পারফরম্যান্স পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছে অ্যাপল। ৬০টির অধিক দেশে ২০০টি ক্যারিয়ারে এই বছরের শেষের দিকেই ৫জি সাপোর্ট ব্যবহার করা যাবে ফোনগুলোতে।

আইফোন ১৩ এর দাম ৭৯৯ডলার আর আইফোন ১৩ মিনি এর দাম ৬৯৯ডলার। তবে আইফোনের এই দাম শুধুমাত্র নির্দিষ্ট ক্যারিয়ার এর নিকট থেকে ক্রয়ের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। আইফোন এর প্রকৃত বাজার মূল্য উল্লেখিত দামের চেয়ে ৩০ডলার অধিক হয়ে থাকে।

আইফোন ১৩ লাইন-আপের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পরিবর্তন এসেছে আইফোন ১৩ প্রো ও আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্সে। এই ফোন দুইটি প্রকাশের মাধ্যমে স্মার্টফোন ইন্ডাস্ট্রিতে অ্যাপল আবারো নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

শত জল্পনাকল্পনার পর আইফোন ১৩ প্রো ও আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্স এ যুক্ত হলো ১২০হার্জ রিফ্রেশ রেট। প্রয়োজন অনুযায়ী আইফোনের সুপার রেটিনা এক্সডিআর ডিসপ্লে ১০হার্জ থেকে ১২০হার্জ পর্যন্ত রিফ্রেশ রেট স্বয়ংক্রিভাবে নিয়ন্ত্রণ করবে। আইফোন ১৩ প্রো এর ডিসপ্লে সাইজ ৬.১ইঞ্চি ও আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্স মডেলের ডিসপ্লে ৬.৭ইঞ্চি।

ক্যামেরা সেটাপকে নতুন করে ঢেলে সাজানো হয়েছে আইফোন ১৩ প্রো সিরিজে। নতুন ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপের দেখা মিলবে নতুন আইফোন ১৩ প্রো সিরিজে। আগের চেয়ে বড় সেন্সর ও ওয়াইডার এপার্চার এর কারণে লো-লাইট ফটোগ্রাফিতে পাওয়া যাবে দারুণ সুবিধা।

আইফোন ১৩ প্রো সিরিজের টেলিফটো ক্যামেরা দিয়ে ৩এক্স জুম করা যাবে এবং টোটাল ক্যামেরা সিস্টেমে আপনি ৬এক্স পর্যন্ত অপটিক্যাল জুম সুবিধা পাবেন। আইফোন ১৩ প্রো সিরিজের প্রতিটি ক্যামেরাই নাইট মোড সাপোর্ট করবে। এছাড়াও ২সেন্টিমিটার পর্যন্ত কাছে গিয়ে ম্যাক্রো ফটোগ্রাফি করার ফিচার যুক্ত হয়েছে।

ভিডিও ডিপার্টমেন্টেও যুক্ত করা হয়েছে কিছু নতুন ফিচার। ফটোগ্রাফিক স্টাইলস নামে একটি ফিচার যুক্ত করা হয়েছে যা ট্রেডিশনাল ক্যামেরা ফিল্টারের মত ভিডিওতে একটি আলাদা লেয়ার যুক্ত করবে। এছাড়াও যুক্ত হয়েছে ৪কে কোয়ালিটিতে ভিডিও ফরম্যাট ProRes।

আইফোন ১৩ সিরিজের মত আইফোন ১৩ প্রো সিরিজে একই চিপসেট থাকলেও ইম্প্রুভমেন্ট থালছে ব্যাটারি ডিপার্টমেন্টে। আইফোন ১৩ প্রো গত বছরের আইফোন ১২ প্রো এর চেয়ে ১.৫ঘন্টা অধিক ব্যাটারি ব্যাকাপ প্রদান সক্ষম। অন্যদিকে আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্স এ ১২ প্রো ম্যাক্স এর চেয়ে ২.৫ঘন্টা অধিক ব্যাকাপ পাওয়া যাবে।

আইফোন ১৩ প্রো এর মাধ্যমে এই প্রথমবারের মত ১টেরাবাইট স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট যুক্ত হচ্ছে আইফোনে। আইফোন ১৩ প্রো এর দাম ৯৯৯ডলার থেকে শুরু। আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্স এর দাম ১,০৯৯ ডলার। আইফোন ১৩ লাইন-আপের ঘোষণার একই সঙ্গে দাম কমেছে আইফোন ১২ ও আইফোন ১১ এর।

আইফোন ১৩ সিরিজের মোট ৪টি মডেল রয়েছে। এদের মধ্যে আইফোন ১৩ মিনির দাম শুরু হবে ৬৯৯ ডলার থেকে। আইফোন ১৩ এর দাম শুরু হবে সর্বনিম্ন ৭৯৯ ডলার এ। আরও আছে আইফোন ১৩ প্রো এবং আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্স। বিস্তারিত আমাদের পোস্টে পাবেন।

আইফোন ১৩ বাংলাদেশে কবে পাওয়া যাবে?
আইফোন ১৩ সিরিজের জন্য অ্যাপল প্রিঅর্ডার নেওয়া শুরু করছে ১৭ই সেপ্টেম্বর থেকে। এরপর ২৪ সেপ্টেম্বর ফোনগুলো গ্রাহকদের হাতে যেতে শুরু করবে। সুতরাং আশা করা যায় যে, ২৪ সেপ্টেম্বরের পর কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই আইফোন ১৩ বাংলাদেশে চলে আসবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *